১৩ সেপ্টেম্বর থেকে খুলছে মেডিকেল কলেজ

আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর থেকে খুলছে দেশের সকল মেডিকেল ও ডেন্টাল কলেজ। বৃহস্পতিবার (২ সেপ্টেম্বর) সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে ব্রিফিংয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এ তথ্য জানান। স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, আগামী ১৩ সেপ্টেম্বর থেকে পর্যায়ক্রমে দেশের সকল মেডিকেল ও ডেন্টাল কলেজ খুলে দেওয়া হবে। এরপর ধাপে ধাপে ক্লাস নেওয়া হবে। সরকারি-বেসরকারি মেডিকেল কলেজ পর্যায়ে প্রাথমিকভাবে প্রথম, দ্বিতীয় এবং পঞ্চম বর্ষের শিক্ষার্থীদের সশরীরে ক্লাস শুরু হবে।

এর আগে গতকাল (বুধবার) স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদফতরের পরিচালক (চিকিৎসা শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. একে এম আহসান হাবিব জানান, ‘আমরা এর আগেই মেডিকেল ও ডেন্টালের ক্লাস শুরুর বিষয়ে ভাবছিলাম। কিন্তু কোভিড-১৯ সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির কারণে পরিস্থিতি অনুকূলে ছিল না। বর্তমানে যেহেতু সংক্রমণ শনাক্তের হার কমে আসছে এবং সেইসঙ্গে কমছে মৃত্যুর সংখ্যাও, তাই মেডিকেল ও ডেন্টাল কলেজ খোলার বিষয়ে আগামীকালের (আজ) বৈঠকে সিদ্ধান্ত আসতে পারে। উল্লেখ্য, ২ এপ্রিল দেশের সরকারি ও বেসরকারি মেডিকেল কলেজগুলোর ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে এমবিবিএস প্রথম বর্ষ ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

এদিকে, করোনাভাইরাসের মহামারির মধ্যে বন্ধ হয়ে যাওয়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান দ্রুত খুলে দেওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেই সঙ্গে করোনা বিষয়ে নিজের জন্য নিজেকে সচেতন থাকার তাগিদ দেন তিনি। বৃহস্পতিবার (২ সেপ্টেম্বর) একাদশ জাতীয় সংসদের চতুর্দশ অধিবেশনে বক্তব্যে এ কথা বলেন সরকারপ্রধান। শেখ হাসিনা বলেন, শিক্ষকদের টিকা দেওয়া হয়েছে। শিক্ষকদের পাশাপাশি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অন্য যারা কর্মরত এবং তাদের পরিবারের সদস্যদের যেন টিকা দেওয়া হয় সে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, স্কুলের ছেলেমেয়েদের বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনা মেনেই টিকা দেয়ার ব্যবস্থা নিচ্ছি। যার জন্য কিছু ফাইজার টিকা ইতোমধ্যে এসে পৌঁছেছে, আরও পৌঁছাবে। অন্যান্য টিকাও আসছে। তিনি বলেন, আমরা দেখতে পাচ্ছি কখনো করোনা একেবারেই কমে যাচ্ছে আবার নতুনভাবে নতুন শক্তিতে এই ভাইরাস আসছে। তবে করোনা আমরা অনেকটা নিয়ন্ত্রণ করতে পেরেছি। দেখা যাচ্ছে টিকা দেওয়ার পরও অনেকে করোনা আক্রান্ত হন, তবে হয়তো তা মারাত্মক হয় না। এজন্য সবাইকে সচেতন থাকতে হবে। তিনি বলেন, টিকার কোনো সমস্যা নেই। যেখান থেকে যতভাবে হোক আমরা টিকা নিয়ে আসছি। খুব তাড়াতাড়ি স্কুল কলেজ খুলে দেয়ার জন্য ইতোমধ্যে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। টিকাদানের ব্যবস্থাও নেওয়া হচ্ছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*