মাছের ড্রামের ভিতর ১০ জন মানুষ

সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউনে শুক্রবার (২৩ জুলাই) সকাল থেকে রাস্তায় জরুরি সেবায় নিয়োজিত পরিবহন ছাড়া অন্য কোনো যানবাহন চলাচল করতে দেখা যায়নি। মহাসড়কে মানুষের চলাচল ছিল না বললেই চলে। এদিন ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে দেখা

গেছে চেকপোস্ট। এমনই কড়াকড়ির মধ্যে দুপুরবেলা আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর চোখ এড়িয়ে একটি ট্রাকে মাছের ড্রামের ভেতরে চেপে ঢাকা থেকে ময়মনসিংহের বাড়ি ফিরছিলেন ১০ যাত্রী। গাজীপুর সিটি করপোরেশনের টঙ্গী থেকে চান্দনা চৌরাস্তা

পর্যন্ত বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ চেকপোস্ট পার হতে পারলেও রাজেন্দ্রপুরে এসে ধরা পড়ে যান তারা। পুলিশ তাদের ড্রাম থেকে বের করে ছেড়ে দিলেও

ট্রাকচালকের বিরুদ্ধে প্রচলিত আইনে মামলা করা হয়েছে। শুক্রবার (২৩ জুলাই) দুপুরে রাজেন্দ্রপুর চৌরাস্তার গাজীপুর মহানগর পুলিশের চেকপোস্টে এ ঘটনা ঘটে।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের সদর জোনের সহকারী কমিশনার (এসি) মো. বেলাল হোসেন বলেন, ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের রাজেন্দ্রপুর চৌরাস্তায় পুলিশ চেকপোস্ট বসিয়ে বিভিন্ন গাড়িতে তল্লাশি চালাচ্ছিল। এ সময় ঢাকা থেকে ময়মনসিংহগামী একটি মাছবাহী ট্রাক দেখে সন্দেহ হলে চেকপোস্টে থামিয়ে তল্লাশি করা হয়। ট্রাকে তল্লাশি করে মাছের ড্রামের ভেতর থেকে ১০ জন যাত্রীকে উদ্ধার করে পুলিশ। তারা ড্রামের ভেতর বসা ছিল। পরে পুলিশ ড্রামের ভেতর থেকে যাত্রীদের নামিয়ে ছেড়ে দেয় এবং চালকের বিরুদ্ধে ট্রাফিক আইনে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। তিনি আরও বলেন, গতকাল রাতে বিভিন্ন এলাকা থেকে ছেড়ে আসা গাড়িগুলো যানজটে পড়ার কারণে ভোর ৬টার আগে পৌঁছাতে পারেনি। তাই লকডাউন শুরুর প্রথম দিন একটু ছাড় দেওয়া হচ্ছে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*