খোলামেলা পোশাকে দেখা যাচ্ছিল বক্ষ, দীপিকার পোশাক নিয়ে ঝড়

দীপিকা পাডুকোন। এক কথায় যাঁকে স্বর্গের অপসরা হিসেবে চেনে ভক্তরা। মেক আপ থাকুক বা না থাকুক, রূপ যেন ঠিকরে পরে দীপিকার। কখনও ইন্ডিয়ান লুকে মাত দেন অন্যান্য অভিনেত্রীদের তো কখনও ওয়েস্টার্ন লুকে হার মানান বিদেশি নায়িকাদের।

এমনটাই ঘটেছিল ২০১৭ সালের মেট গালাতে। সে বছ্র প্রথমবার মেট গালার কার্পেটে হাঁটবেন দীপিকা। ট্রিপল এক্স ছবিতে ভিন ডিজেলের সঙ্গে অভিনয় করে গ্লোবাল জনপ্রিয়তার কাছে পৌঁছে গিয়েছিলেন দীপিকা।

তাঁকে নিয়ে কেবল ভারতেই নয় বেশ চর্চা শুরু হয়েছিল দেশের বাইরেও। সেখান থেকেই তিনি আমন্ত্রিত হন মেট গালায়। বিদেশি ব্র্যান্ডের পোশাকে তিনি হাজির হয়েছিলেন মেট গালার কার্পেটে। মাত দিয়েছিলেন বিদেশি এবং হলিউড ব্যক্তিত্বদের।

টমি হলফিগারের সাদা মুক্তোর রঙের গাউন। গাউনটি দীপিকার শরীরের সেরা স্ট্রাকচারগুলিকে এনহান্স করার জন্য তৈরি হয়েছিল। দীপিকা বেশ লম্বা এবং তাঁর পিঠ থেকে কোমড়ের অংশ রীতিমত টোনড। সেই টোনড ব্যাককেই উন্মুক্ত গাউনে তুলে ধরেছিলেন নায়িকা।

সাদা রঙের গাউনে ছিল হালকা এমব্রয়ডারি করা ফুলের মোটিফ। সেই মোটিভের ডিজাইন দিয়ে তৈরি করা হয়েছিল দীপিকার হেডব্যান্ড। ডেবিউতেই মেট গালায় নজর কেড়েছিলেন দীপিকা। এর আগে ভারতকে রিপ্রেসেন্ট করেছিলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়াও।

তবে দীপিকা-ভক্তদের কাছে দীপিকার লুকই সেরা। তাদের কথায়, এমন গ্র্যান্ড লুকে ডেবিউ করা একমাত্র দীপিকার পক্ষেই সম্ভব।

এই লুকের সঙ্গে কেবল ঝোলা দুল পরেছিলেন অভিনেত্রী। সেই হীরের দুলের ডিজাইন করেছিলেন ফ্রেড লিটন। মাত্র এক জোরা দুলই তাঁর সাজকে আরও সুন্দর করে তুলেছিল। মেকআপও ছিল একেবারে সিম্পল।

উইংড আইলাইনার সেই সময় ফ্যাশন ট্রেন্ডের শিকোয়। চারিদিকে পারফেক্ট উইংড আইলাইনারের জন্য উত্তেজিত হয়ে পড়েছিলেন মেক আপ ইনফ্লুয়েন্সাররা।

তেমনই দীপিকাও মেকআপ হিসেবে বেছে নিয়েছিলে টানা চোখ। দীপিকার মুখের ফিচারসের মধ্যে চোখদুটো অত্যন্ত সুন্দর বলেই মেকআপ আরটিস্টও উইংড আইলাইনারের কথা ভাবেন।

তার সঙ্গে হালকা শেডে লিপস্টিক। বেস মেকআপ যতটা সাধারণ রাখা যায় ততটাই রেখেছিলেন অভিনেত্রী। ২০১৯ এও গোলাপী রঙের গাউনে বারবি ডলের মত দেখাচ্ছিল তাঁকে। গাউনটি তৈরি করতেও লেগেছিল দীর্ঘ সময়।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*